দুর্ধর্ষ সাইবার অপরাধী চক্রের কবলে পড়ে বিপন্ন যুবকের জীবন!

এই লেখাটি 2545 বার পঠিত

Hackerটেলিকম নিউজ: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের এক যুবককে সামাজিক যোগাযোগের অনত্যম সাইট ফেইসবুক হ্যাক ও অতঃপর মোবাইলে চালুকৃত জিমেইল একাউন্ট ট্রাকিং এর মাধ্যমে প্রোফাইল কালেকশান করে অবিনব কৌশলে ব্ল্যাকমেইল করেছে সংঘবদ্ব সাইবার অপরাধী চক্র। সীমাহীন মানুষিক যন্ত্রনায় তার জীবন বিপন্ন হয়ে উঠেছে। ভুক্তভোগী সূত্রে জানা যায়, জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার নরোত্তপুর গ্রামের ও ধানমন্ডিস্থ ডেকো গ্র“প অব কোম্পানীর কর্মকর্তা কামরুজ্জামান ওই কোম্পানীতে যোগদানের পূর্বে গ্রীন ডেল্টা হাউজিং এ কর্মরত থাকা অবস্থায় কোম্পানীর পরিচয় দিয়ে খোলা কামারুজ্জামান স্বপ্ন নামে ফেইস বুক একাউন্টটি হ্যাক করে সাইবার অপরাধী চক্র। অতঃপর swapno84@gmail.com নামে জিমেইল একাউন্ট ট্রাকিং করে চক্রটি। যাতে তার জীবন বৃত্তান্ত সহ অনেক গুরুত্বপুর্ণ তথ্য চক্রটি তৃতীয় অবস্থান হতে ফলো করতে থাকে।

এ সময় তার জিমেইলে একটি ভিওআইপি সার্ভিস প্রোভাইডার ওয়েভসাইট হতে কিছু লোভনীয় ম্যাসেজ দেয়া হয় এতে সাড়া না পেয়ে সরাসরি ব্ল্যাকমেইল করার উদ্দেশ্যে অফিসে যাওয়া আসার সময় নোয়াখালীর আঞ্চলিক ভাষায় হিরা নামক এক যুবক তার সাথে কৌশলে সম্পর্ক সৃষ্টি করে। এর পর তার অন্যতম শখ নাটক তৈরির কথা বলে ১৭/০৪/২০১৩ ইং তারিখ ছেলেটি তাকে সি.এন.জি উঠিয়ে বিভিন্ন অলিগলি পেরিয়ে ধানমন্ডির অজ্ঞাত একটি বাসায় নিয়ে যায়। বাসায় ঢুকার পর বিভিন্ন ভয়ভীতি প্রদর্শন করে বাজে পরিবেশের সাউন্ড বাজিয়ে তার রের্কড ধারন করে। এ সময় তার হাতে বিভিন্ন তারিখ উল্লেখ করে ডায়ালগ ধরিয়ে দেয় র্দুবৃত্তরা । তারও কিছুদিন পর নোয়াখালীর আঞ্চলিক ভাষায় কামরুজ্জামানকে আক্রমন করে অপবাদ দিয়ে বিভিন্ন স্থানে একটি কবিতা প্রেরন করে। একের পর এক অঘটনে আতংকিত এ যুবক খুঁজতে থাকে এরা কারা ?

কয়েক দিন পর সে ডিসি অফিস যাবার পথে ধানমন্ডিতে ঘটানো ওই যুবককে দেখে তার পিছু নেয় সে, এক পর্যায়ে গুলিস্তান সুন্দরবন স্কয়ার একটি মার্কেটের পিছনে সিড়ি দিয়ে ওপরে উঠে যায় যুবকটি। বেশ কিছুক্ষন অপেক্ষা করার পর দেখে ছেলেটা বের হয়ে চলে যায়। অনেক লোককে উঠতে দেখে সেও তাদের সাথে সুর মিলিয়ে উপরে উঠে এক ভয়ংকর জগতের সন্ধান পায়। সেখানে র্দুবৃত্তদের পরিচয় জানতে অনেক কৌশল অবলম্বন করে উল্টো তাদের পাতা ফাঁদে পা দেয়। এ সময় একটি খোলা জানালা পাশে দাড়ানো অবস্থায় ৪/৫ জনের একদল যুবক পিছন থেকে মাথা সহ পিছনের অংশ ভিডিও করে এবং এর পরই মুলত তাদের হাতে জিম্মি হয়ে পড়ে সে। তারা ভয়ভীতি প্রদশর্ন করে তার ও নিকট আত্বীয়ের ভয়েজ রেকর্ড অনলাইনে প্রকাশ এবং হুমকি দিয়ে বিভিন্ন বিষয়ে চাপ সৃস্টি করে প্যাচে ফেলতে থাকে। সংকট উত্তরনে বন্দ্বুদের সহযোগিতায় তাদের সরাসরি আইনশৃংখলা বাহিনীর হাতে তুলে দেয়ার প্লান করে সে।

দুঃখজনক ভাবে এ তথ্যটি ফাস হলে ক্ষিপ্ত হয়ে গত ১৫ মে তার বন্ধু রাজিব সহ বারিন্দ মেডিকেল কলেজে একটি ভর্তি বিষয়ক কাজে রাজশাহী হতে ফেরার পথে হানিফ কাউন্টারে রাত ১১ টায় বিভিন্ন নাম্বার হতে তার কাছে ফোন করে সনাক্ত করে ব্যাগের কাছে ৫৫ বোতল ফেনসিডিল রেখে ফাসানোর চেষ্টা করে র্দুবৃত্তরা। বার বার মোবাইল নম্বর পরিবর্তন করলেও র্দুবৃত্তদের হাতে নাম্বার চলে যায়। অবিরাম চলে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে যন্ত্রনা দেয়ার মিশন। ২ আগস্ট +২১৩৫৬৮৯১০১১২০ নম্বর থেকে তার নম্বরে একটি মিস কল আসে কল বেক করার সাথে সাথে ভয়েজ টেক্সট এর মত করে অশ্লীল ভঙ্গীতে সম্পাদন করা বিভিন্ন কনভারসেশন শোনানো হয়। রবি কাস্টমার সেন্টার জানায়, এটি একটি অপরাধ চক্রের আর্ন্তজাতিক ফলট নম্বর । এতে সে ব্যাপকভাবে মানুষিক যন্ত্রনা পেতে থাকে।

এর পর কর্পোরেট মোবাইল নাম্বারটি ’মোবাইল বিক্রি‘ হবে মর্মে সেল বাজারে ছড়িয়ে দেয়া হয়। গত ২২ আগস্ট পরবর্তী অন্তত ৫টি মোবাইল নাম্বার হতে মোবাইল করে ২ লাখ টাকা দাবী করা হয় নতুবা জীবন বীমা করে রাখার জন্য বলে। এমনকি একটি নম্বও থেকে বাজেভাবে ফাসানোর হুমকি দেয়া হয়। এতে সাড়া না দিয়ে সরাসরি ধানমন্ডি থানা পুলিশকে অবহিত করে থানায় ডায়েরী করেন। সম্প্রতি ডেকো গ্রুপ নামক ওই কোম্পানীর অপারেশন বিভাগের শাহীনুল ইসলাম তাকে ব্ল্যাক মেইল করে ধারনকৃত ডায়ালগ গুলো বলতে থাকে এবং একজন পিয়নকে সাথে নিয়ে বিভিন্ন অপবাদ ছড়িয়ে মানুষিক আঘাত দিতে থাকে। ওই কোম্পানীর কর্পোরেট পলিটিক্সের হোতা শাহীন এর সাথে চক্রটির যোগাযোগ আছে এবং বন্ধুদের সাথে কথোপকথনের সকল তথ্য সে ফাস করেছে নিশ্চিত হয়ে নিজের নিরাপত্তার কথা ভেবে চাকুরি ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সে।

এতে তার ক্যারিয়ারে ব্যাপক প্রভাব পড়ে, অমানুষিক যন্ত্রনায় মাস্টার্স পরীক্ষাও ঠিক মত দিতে পারেনি। দীর্ঘ দিন যাবৎ সীমাহীন মানুষিক টর্চারের ফল পড়ে তার শরীরে। তার কাছে আসা মোবাইল কল গুলোর সুত্র ধরে কয়েকজন বন্ধুর সহযোগিতায় সে বিভিন্ন কৌশল প্রয়োগ করে জানতে পারে ওই চক্রের মুল হোতার ফেইস বুক আইডির নাম “ঘুম রাজ্যের রাজ কুমার”এবং এর অপারেটর- আশিক আবদুল্লাহ, রাজশাহী রাজপাড়া থানার রায়পাড়া এলাকার ।জানাযায়, রাজশাহীর ক্রাইম জোন হিসেবে পরিচিত রায়পাড়া এলাকায় খুন, রাহাজানি,মাদক পাচার, সহ ব্যাপক অপর্কমের রের্কড রয়েছে। সঙ্গত কারনে কিশোর বয়স হতে এরা অপরাধ কর্মকান্ডের সাথে জড়িয়ে পড়ে। অনলাইনে বিভিন্ন ওয়েবসাইট, ভুয়া আইডি খুলে সংঘঠিত হয়ে বিভিন্ন অপকর্ম এবং মোবাইল ফোনে মিস্টি কথায় সাধু সেজে মেয়েদের প্যাচে ফেলে হীনস্বার্থ চরির্তাথ করে থাকে।

বিভিন্ন ভুয়া আইডি হতে রিকুয়েস্ট পাঠিয়ে ফেইস বুক হ্যাক, জিমেইল ট্রাকিং করে এবং টার্গেটকৃত ব্যাক্তির প্রোফাইল কালেকশান করে নানাভাবে ফাদে ফেলে নিরাপদ দুরুত্বে থেকে ব্ল্যাকমেইল শুরু করে এবং অমানুষিক যন্ত্রনা দিয়ে ও আতংকিত করে বাধ্য করে টাকা দিতে। স্বনামধন্য কোম্পানীর কর্পোরেট অফিসেও এদের এজেন্ট রয়েছে। কয়েকটি মোবাইল কোম্পানির নিম্ম শ্রেনীর কর্মচারীও এর সাথে জড়িত। বিশ্বস্ত সুত্রে জানা যায়, আশিক আবদুল্লাহ ঢাকায় এসে শ্যামলীতে জনৈক এক আতœীয়ের বাসায় অবস্থান নিয়ে চক্রের অন্য সদস্যদের সাথে বিভিন্ন অপকর্মে অংশ নেয়। জামালপুরের মাদারগঞ্জের মেহেদী হাসান নামক এক যুবক তার অন্যতম সহযোগী। ঘুম রাজ্যের রাজকুমার ফেইসবুক আইডি চার্চ দিয়ে দেখা যায় দেশের বিভিন্ন জেলা এবং বিভিন্ন প্রাইভেট ইউনিভারসিটিতে রয়েছে তার শক্তিশালী নেটওর্য়াক। বিভিন্ন ভুয়া আইডিতে এরা অত্যন্ত সংগঠিত। দেয়া রয়েছে অশ্লীল ভাষায় কিছু পোস্টও ছবি। আর্ন্তজাতিক অপরাধ চক্রের নাম্বার হতে কল দেয়া হতে বুঝা যায় চক্রটির সাথে বিদেশী সাইবার অপরাধ চক্রেরও যোগাযোগ রয়েছে এবং বিভিন্ন সফটওয়্যার রয়েছে। ধানমন্ডি থানা পুলিশ জানায়, চক্রটিকে সনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

Telecom Bangla

ঢাকা অফিসঃ ১৬২ পশ্চিম ধানমন্ডি, ঢাকা ফোন :০১৯১১-৩১৬৯৮৮
ই-মেইল:moretaza@gmail.com
যুক্তরাস্ট্র অফিস :৭১-২০, ৩৫ অ্যাভিনিউ, জ্যাকসন হাইটস, নিউইয়র্ক ১১৩৭২
মোবাইল: +১ (২১২) ২০৩-৯০১৩, +১ (২১২) ৪৭০-২৩০৩
ইমেইল: dutimoy@gmail.com
এডিটর ইন চিফ : মুজিবুর আর মাসুদ ইমেইল: muzibny@gmail.com
©সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত, টেলিকম বাংলা.কম, ২০১৪-২০১৬