ফেসবুকে যে ভুলগুলো করে নিজের বিপদ ডেকে আনছেন!

এই লেখাটি 99 বার পঠিত

fndlতথ্য-প্রযুক্তির কল্যাণে বর্তমানে আমাদের জীবনের বড় একটি অংশ জুড়ে রয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। এর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় ফেসবুক।

এমন অনেকেই আছেন যাদের প্রতিদিন অন্তত একবার ফেসবুকে ডু না মারলে চলেই না। কেউ বা প্রতিদিন একের পর এক লেখা ও ছবি পোস্ট দিচ্ছেন। কিন্তু এই ফেসবুকই হতে পারে আপনার বিপদের কারণ। তাই চলুন কিছু বিষয় জেনে নিই যা ফেসবুকে ব্যবহারকারীকে রাখবে নিরাপদ।

১. নিজের সম্পর্কে খুব বেশি তথ্য দেবেন না। কী করেন, কোন শহরে থাকেন এই ধরনের প্রাথমিক তথ্য ফেসবুক বা টুইটারে দিতেই পারেন। তবে কোন বিভাগে কোন পদে কাজ করেন, অফিসের ঠিকানা কী অথবা বাড়ির নিখুঁত ঠিকানা— এসব দেওয়ার দরকার নেই মোটেও।

২. যতই কৌতূহল হোক, কখনও কারও ওপরে নজর রাখার চেষ্টা করবেন না। কারণ এই স্বভাব বিপদ ডেকে আনবেই।

৩. অনলাইনে ঝগড়া করে কোনও দিন কারও দৃষ্টিভঙ্গি বদলানো যায় না। বরং আপনাদের ঝগড়া হয়ে উঠতে পারে অন্যের হাসির খোরাক। তাই কোনও পরিস্থিতিতেই অনলাইন ঝামেলায় জড়াবেন না। যাঁর সঙ্গে আপনার বিবাদ, তিনি যদি আপনার নিকট কেউ হন, তাহলে পরে সামনাসামনি বা টেলিফোনে মীমাংসা করে নিন।

৪. নিজের সম্পর্কে মিথ্যা বলবেন না কোনও পরিস্থিতিতেই। অনেকেই নিজের জনপ্রিয়তা বাড়ানোর জন্য একটু আধটু বাড়িয়ে বলেন। এই অভ্যাস একবার ধরা পড়ে গেলে কিন্তু মানসম্মান তছনছ হয়ে যাবে।

৫. সাবেক প্রেমিকের সঙ্গে ফ্লার্ট করার প্রবণতা রয়েছে অনেকের। এই অভ্যাস থাকলে ত্যাগ করুন। পারলে ঘনিষ্ঠতাও এড়িয়ে চলুন। এটা আপনার বর্তমান প্রেমিক বা প্রেমিকার কাছে বিরক্তিকর হতে পারে।

Telecom Bangla

ঢাকা অফিসঃ ১৬২ পশ্চিম ধানমন্ডি, ঢাকা ফোন :০১৯১১-৩১৬৯৮৮
ই-মেইল:moretaza@gmail.com
যুক্তরাস্ট্র অফিস :৭১-২০, ৩৫ অ্যাভিনিউ, জ্যাকসন হাইটস, নিউইয়র্ক ১১৩৭২
মোবাইল: +১ (২১২) ২০৩-৯০১৩, +১ (২১২) ৪৭০-২৩০৩
ইমেইল: dutimoy@gmail.com
এডিটর ইন চিফ : মুজিবুর আর মাসুদ ইমেইল: muzibny@gmail.com
©সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত, টেলিকম বাংলা.কম, ২০১৪-২০১৬