ম্যাপল মোবাইল দেশেই হ্যান্ডসেট ম্যানুফ্যাকচারিং করবে: শোয়েব আলম

এই লেখাটি 3042 বার পঠিত

Mapple-Mobileটেলিকম নিউজ: আগামী জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহে বাংলাদেশের মার্কেটে যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে ‘ম্যাপল মোবাইল’ নামে বাংলাদেশি ব্র্যান্ডের হ্যান্ডসেট। সর্বোচ্চ গ্রাহক সেবা দিতে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ১৪টি কাস্টমার সার্ভিস সেন্টার স্থাপন করাসহ প্রায় সব আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। দেশের বাজারে নতুন হ্যান্ডসেট ও ব্যবসার নানান পরিকল্পনা নিয়ে কথা বলেছেন ম্যাপল মোবাইল এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শোয়েব আলম।

টেলিকম নিউজ: বাংলাদেশে নতুন ব্র্যান্ডের হ্যান্ডসেট নিয়ে আসার প্ল্যান কিভাবে করলেন?
মো. শোয়েব আলম: বাংলাদেশে হ্যান্ডসেটের মার্কেট উর্বর। তাই আমরা অনেক গবেষণার পর ৯ সদস্য বিশিষ্ট একটি পরিচালনা কমিটির মাধ্যমে এই ব্র্যান্ডের আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছি। এ জন্য প্রথম এক বছর মার্কেট অ্যানালাইসিস করেছি। ক্রেতাদের চাহিদা বোঝার চেষ্টা করেছি এবং সে অনুযায়ী হ্যান্ডসেট নিয়ে আসছি। আমরা জানতে পেরেছি ‘আফটার সেল সার্ভিস’ বাংলাদেশের হ্যান্ডসেট মার্কেটে সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ। তাই আমারা এটাকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিবেচনা করছি।

টেলিকম নিউজ: ম্যাপল মোবাইল কবে থেকে মার্কেটে আসবে?
মো. শোয়েব আলম: আশা করছি আগামী জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহে বাংলাদেশের মার্কেটে যাত্রা শুরু করবে ‘ম্যাপল মোবাইল’ নামের নতুন ব্র্যান্ড।

টেলিকম নিউজ: নতুন হ্যান্ডসেট অপারেটররা প্রথম দিকে ভালো গ্রাহক সেবা দিতে ব্যর্থ হয়, আপনাদেরও কি তাই হবে?
মো. শোয়েব আলম: না। কারণ আমরা গ্রাহক সেবাকেই সর্বোচ্চ গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করছি। আমরা হ্যান্ডসেট বাজারে ছাড়ার আগেই দেশের বিভিন্ন জেলা শহরে অন্তত ১৪টি গ্রাহক সেবা কেন্দ্র চালু করেছি।

টেলিকম নিউজ: অনেক প্রতিষ্ঠান আছে যারা অন্যের দোকানের মধ্যে ছোট করে গ্রাহক সেবা কেন্দ্র খোলে, আপনারাও কি তাই করছেন?
মো. শোয়েব আলম: দেখুন, আমি আগেই বলেছি আমরা গ্রাহক সেবাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছি। তাই তাদের সাথে কোন প্রকার ছল চাতুরতা করতে চাই না। আমরা সব গ্রাহক সেবা কেন্দ্র ইন্ডিভিজুয়াল করছি।

টেলিকম নিউজ: এখন পর্যন্ত কোথায় কোথায় গ্রাহক সেবা কেন্দ্র চালু হয়েছে এবং আগামীতে এ ব্যাপারে আর কি প্লান আছে?
মো. শোয়েব আলম: আমরা এখন পর্যন্ত ১৪টি গ্রাহক সেবা কেন্দ্র চালু করেছি। এসব সার্ভিস সেন্টারগুলো ঢাকা, সাভার, গাজীপুর, রাজশাহী, টাঙ্গাইল, খুলনা, দিনাজপুর, রংপুর, কুমিল্লা, শ্রীমঙ্গল, নরসিংদী এবং সিলেট জেলা শহরে অবস্থিত। আগামী ৬ মাসের মধ্যে সব মিলে ৫০টি গ্রাহক সেবা কেন্দ্র স্থাপনের পরিকল্পনা আছে।

টেলিকম নিউজ: টেলিকম সেক্টরে কি আপনার আগে কোন কাজ করার সুযোগ হয়েছে?
মো. শোয়েব আলম: হ্যাঁ, আমি যুক্তরাজ্যের ম্যাটা সুইচ নামের একটি টেলিকম প্রতিষ্ঠানে দীর্ঘদিন কর্মরত ছিলাম। এছাড়া পড়াশোনাও করেছি টেলিকমিউনিকেশন নিয়ে। বাংলাদেশের হ্যান্ডসেটের বাজার নিয়েও গবেষণা করেছি।

টেলিকম নিউজ: বাংলাদেশি মোবাইল ফোনে ব্যাটারি একটি বড় সমস্যা, এ ব্যাপারে আপনারা কি কোন উদ্যোগ নিছেন?
মো. শোয়েব আলম: দেখুন, বাংলাদেশে যারা হ্যান্ডসেটের ব্যবসা করেন তাদের মধ্যে অনেকেই গ্রাহকদের সাথে প্রতারণা করছেন। ব্যাটারির গায়ে লেখা থাকে এক ধরণের ধারণ ক্ষমতা আর আর গ্রাহক পায় অন্য ধরণের (কম ক্ষমতা সম্পন্ন) ধারণ ক্ষমতা। এ জন্য আমরা প্রত্যেকটি গ্রাহক সেবা কেন্দ্রে ব্যাটারির পাওয়ার টেস্টিং ডিভাইস রাখছি। চাইলে গ্রাহকরা তাদের মোবাইল হ্যান্ডসেটের ব্যাটারি সত্যিকারের অর্থে কত এমপিআর আছে তা পরীক্ষা করে দেখতে পারবেন।

টেলিকম নিউজ: মোবাইল সেটগুলো কোন দেশ থেকে নিয়ে আসছেন?
মো. শোয়েব আলম: আমাদের মোবাইলগুলো চীন থেকে তৈরি করে দেবে হংকং ভিত্তিক একটি প্রতিষ্ঠান। আগামী জুলাই মাসে বাংলাদেশে প্রথম শিফটে ৪টি এবং পরের শিফটে আরও ৪টি মোবাইল নিয়ে ম্যাপল মোবাইল তাদের কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে। এর মধ্যে ৪টি ফিচার ফোন এবং ৪টি স্মার্টফোন। প্রথম শিফটে প্রায় ৩০ হাজার মোবাইল সেট আসছে। হ্যান্ডসেটগুলোর ব্যাটারি ব্যাকআপ উন্নতমানের করা হয়েছে। ন্যূনতম ১২৫০ এমপিআর থেকে ৩৩০০ এমপিআর পর্যন্ত ব্যাটারি দেয়া হবে হ্যান্ডসেটগুলোতে।

টেলিকম নিউজ: আপনাদের হ্যান্ডসেটের মূল্য কেমন হবে?
মো. শোয়েব আলম: আমরা কম দামের মধ্যে ভালো কিছু দিতে চাই। এ জন্য মাত্র ১ হাজার টাকা থেকে শুরু করে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে এসব হ্যান্ডসেট বাজারে ছাড়তে যাচ্ছি। ২২০০ টাকায় পাওয়া যাবে অ্যান্ড্রয়েড ফোন। থ্রিজি স্মার্টফোন পাওয়া যাবে ৫ হাজার টাকার মধ্যে। আর ১৫ হাজার টাকা মূল্যের হ্যান্ডসেটে থাকছে কোয়ার্ক কোর প্রসেসর, ১ গিগাবাইট র‍্যাম, ৮ গিগাবাইট বিল্টিং ম্যামোরি, আই সেন্সরসহ সকল সেন্সর এবং সংশ্লিষ্ট অনেক ফিচার। এছাড়া সকল হ্যান্ডসেটেই ইন্টারনেট ব্যবহার করা যাবে।

টেলিকম নিউজ: আপনাদের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সম্পর্কে বলুন।
মো. শোয়েব আলম: ম্যাপল মোবাইল আগামীতে বাংলাদেশেই হ্যান্ডসেট ম্যানুফ্যাকচারিং করবে। তবে আগামী ৬ মাস পর থেকেই অ্যাসেম্বেলিং শুরু করতে পারবো। হ্যান্ডসেট ছাড়াও উন্নতমানের মোবাইল ব্যাটারি প্রোডাকশন করার ইচ্ছা রয়েছে।

টেলিকম নিউজ: বাংলাদেশে অনেক বড় প্রতিষ্ঠান এতো বড় পরিকল্পনা করার সাহস পায় না আপনারা পেলেন কিভাবে?
মো. শোয়েব আলম: দেখুন, মাইক্রোসফট অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস বানাতে সাহস না পেলেও গুগল তা পেরে দেখিয়েছে। ফেসবুক চ্যাটিং সেবা চালু রাখার পরেও হোয়াটঅ্যাপস বিশ্বে বিপ্লব সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছে। সব সময় সব বড় অর্জন শুধু বড়রাই করে না ছোটরাও করে দেখিয়ে দিতে পারে। আমরা দৃঢ়তার সাথে আমাদের পরিকল্পনার বাস্তবায়নের স্বপ্ন দেখি।

Telecom Bangla

ঢাকা অফিসঃ ১৬২ পশ্চিম ধানমন্ডি, ঢাকা ফোন :০১৯১১-৩১৬৯৮৮
ই-মেইল:moretaza@gmail.com
যুক্তরাস্ট্র অফিস :৭১-২০, ৩৫ অ্যাভিনিউ, জ্যাকসন হাইটস, নিউইয়র্ক ১১৩৭২
মোবাইল: +১ (২১২) ২০৩-৯০১৩, +১ (২১২) ৪৭০-২৩০৩
ইমেইল: dutimoy@gmail.com
এডিটর ইন চিফ : মুজিবুর আর মাসুদ ইমেইল: muzibny@gmail.com
©সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত, টেলিকম বাংলা.কম, ২০১৪-২০১৬